১২ ও ১৩ই ডিসেম্বর বারাসাত তিতুমীর হলে (জেলা পরিষদ) অনুষ্ঠিত হয়ে গেল তৃতীয় বর্ষের ঋতুরঙ্গম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০২০। মূলত ঋতুপর্ণ ঘোষের স্মরণে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে এবছর বিভিন্ন পরিবেশনার মাধ্যমে স্মরণ করা হয় সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে। দুইদিনের অনুষ্ঠানে মত চল্লিশটি ছোট ছবি ও তথ্যচিত্র দেখানো হয়। তার সাথে ছিল তিনটি মিউজিক ভিডিও।

ভারত ছাড়াও USA, UK, অস্ট্রেলিয়া, স্পেন, মায়ানমার, বাংলাদেশ, কানাডার বেশ কয়েকটি ছোট ছবি প্রদর্শিত হয়। জাতীয় ছবিগুলি ছিল প্রতিযোগিতামূলক।
সেরা ছোটছবির (শুভ মহরত সম্মান) সম্মান পায় “স্বপ্ন হলেও সত্যি” পরিচালক ঋজুল বর, সেরা তথ্যচিত্র “Walking under the Sun” পরিচালক উৎকর্ষ চতুর্বেদী (উত্তর প্রদেশ)। সেরা ভাবনা (সব চরিত্র কাল্পনিক সম্মান) পায় “Goodbye Beautiful” পরিচালক দেবাদ্রিতা বোস।

সেরা চিত্রগ্রহণ ও সেরা আবহ পায় “আগমনীর অবগাহন” পরিচালক অভিজিৎ রায়।সেরা অভিনেতা (অপরাজিত অপু সম্মান) পায় সোমনাথ মন্ডল “গন্তব্য’ ছবির জন্য পরিচালক শাহিন আকতার।
সেরা অভিনেত্রীর সম্মান পায় সুদেব সুভানা “Goodbye Beautiful” ছবির জন্য। প্রসঙ্গত কোনো রূপান্তরকামী নারীকে এই পতথম সেরা অভিনেত্রীর সম্মান দেওয়া হল।

সেরা সহ অভিনেতা: বাবু ঘোষাল (স্বপ্ন হলেও সত্যি), সেরা সহ অভিনেত্রী: মধুমিতা কাব্য (গন্তব্য) সেরা শিশু শিল্পী: দীপ দাস (স্বপ্ন হলেও সত্যি), সেরা পরিচালক (হীরের আংটি সম্মান): দেবাঞ্জন মাঝি (A silent warble) সেরা সম্পাদনা: উর্মি ব্যানার্জী (মুম্বই) “Afloat” ছবির জন্য। এছাড়াও বিশেষ জুড়ি পুরস্কার পায় একটি অপ্রদর্শিত ছবি “সিনেমা মন আমর” পরিচালক: শারণ্য দে এবং একটি প্রদর্শিত তথ্যচিত্র “A little too big!” পরিচালক সুমন চক্রবর্তী।

গত তিনবছর ধরে কোনোরকম সরকারী সাহায্য ও স্পন্সর ছাড়াই বারাসতে এই অনুষ্ঠানটি করে চলেছেন ঋতুরঙ্গম তথা ঋতুরঙ্গম এর কর্নধার রাহুল বিশ্বাস। ঋতুরঙ্গম এর মূল উদ্দেশ্য ছোট ছবিকে মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া ও স্বাধীন চলচ্চিত্র নির্মাতাদের একটি প্ল্যাটফর্ম দেওয়া।
এবছর প্রধান বিচারক হিসেবে ছিলেন প্রখ্যাত চিত্রগ্রাহক অসীম বোস ও জুড়ি সদস্য ছিলেন হীরক বন্দ্যোপাধ্যায় ও সায়ক দেব।

প্রতিবছর এই অনুষ্ঠানে বিশেষ ব্যক্তিত্বদের হাতে তুলে দেওয়া হয় “ঋতুরঙ্গম সম্মান” বিগত বছর গুলিতে এই সম্মান পেয়েছেন পরিচালকা শীলা দত্ত, অভিনেত্রী সান্তনা বোস, অভিনেত্রী দোলন রায়, পরিচালিকা সুদেষ্ণা রায়, চিত্রগ্রাহক অসীম বোস।
এবছর এই সম্মান তুলে দেওয়া হয় জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত অভিনেত্রী ও জাতীয় পুরস্কারের জুড়ি সদস্য শ্রীলেখা মুখোপাধ্যায় এবং দূরদর্শন এর প্রোগ্রাম ডিরেক্টর শ্রী অরুণাভ রায় মহাশয়কে। দুইদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থাপনা করেন লিপিকা পাল।

ছবি দেখানোর সাথে সাথে ঋতুরঙ্গম এই অনুষ্ঠানে উদ্বোধন করে তাদের চলচ্চিত্র বিষয়ক শিক্ষামূলক পত্রিকা “কাজরী”।
এই অনুষ্ঠানে মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ছিল Wideinches, Bengal95, Pastiche, আজকের প্রমিতা ও শহরের কথা। submission partner ছিল Artist Intrigrated।