smoking

সিগারেট ও তামাকজাত দ্রব্যের ব্যবহার ২১ বছর বাড়ানোর জন্য কেন্দ্রীয় সরকার একটি খসড়া বিল তৈরি করেছে। সিগারেট ও অন্যান্য তামাকজাত পণ্য আইনের (সিওটিপিএ) কেন্দ্রীয় সরকারের খসড়া করা একটি সংশোধনীতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় তামাকজাত পণ্য ও সিগারেট ব্যবহারের বৈধ বয়স ১৮ বছর বয়স থেকে বাড়িয়ে ২১ করার চেষ্টা করেছে।

আগে শিবের মন্দির ছিল,এই দাবিতে তাজমহল চত্বরে উড়ল গেরুয়া পতাকা

খসড়া বিলে আলগা সিগারেট বিক্রি নিষিদ্ধ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। সরকার সিগারেট এবং অন্যান্য তামাকজাত পণ্য (বাণিজ্য ও বাণিজ্য, উৎপাদন, সরবরাহ ও বিতরণ নিষিদ্ধকরণ) সংশোধনী আইন, ২০২০ এর খসড়া তৈরি করেছে। এই খসড়ায় রেস্টুরেন্ট এবং বিমানবন্দরে নির্দিষ্ট ধূমপান কক্ষ নিষিদ্ধ করা হয়েছে এবং প্রকাশ্য স্থানে নিয়ম লঙ্ঘনের জন্য জরিমানা বৃদ্ধি করা হয়েছে। সংশোধনী অনুযায়ী, “কোন ব্যক্তি কোন ব্যক্তি একুশ বছরের কম বয়সী কোন ব্যক্তিকে বা কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১০০ মিটারের মধ্যে কোন ব্যক্তিকে বিক্রি, সিগারেট বা অন্য কোন তামাকজাত দ্রব্য বিক্রি, বিক্রির প্রস্তাব বা অনুমতি দিতে পারবে না।

ধারা ৭ সংশোধন করে বলা হয়েছে, “যদি সিগারেট বা অন্য কোন তামাকজাত দ্রব্যের বাণিজ্য ও বাণিজ্য সিল করা হয়, অক্ষত এবং মূল প্যাকেজিং-এ থাকে”। এছাড়াও সরকার বৈধ ধূমপানের বয়সের অধীনে ব্যক্তিকে তামাকজাত দ্রব্য বিক্রির শাস্তি দুই বছর থেকে বাড়িয়ে ১,০০০ টাকা থেকে সাত বছরের কারাদণ্ড এবং ১ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করার আহ্বান জানিয়েছে।