আমাদের দৃষ্টিশক্তি একাধিক কারণে কমে যেতে পারে, যেমন ডায়াবেটিস, চোখের ট্রমা, ছানি বা গ্লুকোমা সহ একাধিক কারণ থাকতে পারে । বিশ্বব্যাপী ৩ কোটিরও বেশি ব্যক্তি অন্ধত্বে ভুগছেন, যেখানে ভারতের মোট সংখ্যার প্রায় এক-তৃতীয়াংশ।

টাইটান কোম্পানি লিমিটেড, আইওয়্যার বিজনেস-এর চিফ অপ্টোমেট্রিস্ট অ্যান্ড ট্রেনিং-এর প্রধান রমেশ পিল্লাই বলেছেন, ভারতে ৫ কোটিরও বেশি মানুষ দৃষ্টিশক্তির মারাত্মক দুর্বল, যা তাদের ব্যক্তিগত এবং পেশাগত জীবনে প্রভাব ফেলেছে। “কোভিড-১৯ এর আক্রমণের ফলে মানুষের জন্য মানুষের মোবাইল,লাপটপে ব্যবহারের সময় বৃদ্ধি পেয়েছে এবং চোখের স্বাস্থ্যের অবনতির একটি প্রধান কারণ এটি। চোখের যত্ন এবং চোখের স্বাস্থ্য আরো প্রয়োজনীয় হয়ে উঠেছে এই পরিস্থিতিতেও।

চোখের স্বাস্থ্য ভালো করার জন্য পাঁচটি সহজ এবং কার্যকর উপায়ের পরামর্শ দিয়েছেন:

সঠিক চশমা
ব্র্যান্ডেড সানগ্লাস পরা যা ১০০ শতাংশ ইউভি সুরক্ষা প্রদান করে যখন আউটডোর আপনার চোখ ইউভি রশ্মি এবং ক্যাটারাক্ট গঠনের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে রক্ষা করতে পারে। নীল প্রলেপ সঙ্গে অ্যান্টি-রিফ্লেকশন লেন্সের মত পর্দা ব্যবহারের জন্য সঠিক চশমা পরা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। নীল প্রলেপ ক্ষতিকর নীল বেগুনি রশ্মি আটকাতে সাহায্য করে।

রাইট ডায়েট
শাক, এবং ব্রকোলির মত পাতা সবুজ শাকসবজি খাওয়া লুটেইন ধারণ করে এবং জ্যাক্সানথিন ছানি প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। লুটেইন এছাড়াও পিগমেন্ট বৃদ্ধি উদ্দীপিত করে যা ক্ষতিকর ইউভি রশ্মি আটকাতে সাহায্য করে। ভিটামিন সি এবং ই এবং জিঙ্ক সমৃদ্ধ খাদ্য, বয়স সম্পর্কিত ম্যাকুলার ডিজেনারেশন (ARMD) নামে একটি অবস্থা বিকাশের ঝুঁকি হ্রাস করে। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সূর্যের ক্ষতি থেকে রক্ষা করে। অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের ভাল উৎসের মধ্যে রয়েছে ডিমের কুসুম, হলুদ মরিচ, কুমড়ো, মিষ্টি আলু, গাজর, ব্লুবেরি। পেঁয়াজ, শালোট, রসুন, ক্যাপার সালফার, সাইস্টেইন, এবং লেসিথিন ধারণ করে, যা ছানি গঠনের বিরুদ্ধে সাহায্য করে।

চোখ আর্দ্র রাখুন
শুষ্ক চোখ একটি প্রধান সমস্যা, বিশেষ করে যখন দূষণ দিন দিন খারাপ হতে থাকে। প্রায়ই চোখ বিশ্রাম এবং পলক চোখ আর্দ্র, শুষ্কতা থাকে । অতিরিক্ত শুষ্কতা থাকলে আপনার চোখ আর্দ্র রাখতে সাহায্য করার জন্য চোখের ড্রপ ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যবহার করতে পারেন।

স্ক্রীনের থেকে সুরক্ষা-
মোবাইল বা ল্যাপটপ ব্যবহারের সময় বৃদ্ধি একটি অনিবার্য বাস্তবতা য় পরিণত হওয়ার সাথে সাথে, আপনার চোখের ভাল যত্ন নেওয়া ভীষণ দরকার। আপনার থেকে ২০ ফুট দূরে বস্তু দেখতে প্রতি ২০ মিনিটে একটি ২০ সেকেন্ড স্ক্রীন বিরতি গ্রহণ করে ২০-২০-২০ নিয়মে ব্যবহার করুন। অন-স্ক্রীন পড়ার সময় ফন্টের আকার বৃদ্ধি করুন, যাতে ডিভাইসগুলি আপনার চোখের খুব কাছাকাছি থাকার প্রয়োজন না হয়, এবং আপনাকে স্কুইন্ট করতে হবে না। একটি পরিষ্কার পর্দা দৃশ্যমানতা বাড়ায়, দিনে অন্তত একবার আপনার ডিভাইস গুলোর স্ক্রিন মুছে ব্যাবহার করুন।

চোখের পরীক্ষা
প্রতি বছর একবার একজন যোগ্য অপ্টোমেট্রিস্ট বা চোখের ডাক্তার দ্বারা আপনার চোখ পরীক্ষা করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। নিয়মিত চক্ষু পরীক্ষা চোখের চাপের সাথে সম্পর্কিত যে কোন উপসর্গ খুঁজে পেতে এবং এর সমাধান প্রদান করতে সাহায্য করে। বিশ্ব দৃষ্টি দিবস উপলক্ষে টাইটান আইপ্লাস একটি উদ্যোগ চালু করেছে– অনলাইন স্ক্রিন টেস্টিং। ৬০ সেকেন্ড বের করুন এবং একটি সহজ অনলাইন চক্ষু পরীক্ষা নিন যা আপনাকে ইঙ্গিত দেবে যে আপনি দৃষ্টিশক্তির সমস্যায় ভুগছেন কিনা। ভিত্তি স্ক্রীনিং ফলাফল, ব্র্যান্ড সবাইকে একজন চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞ বা অপটিশিয়ানের কাছে যেতে অনুরোধ করে।