যোগী সরকার উত্তর প্রদেশের কুখ্যাত গ্যাংস্টার বিকাশ দুবের এনকাউন্টারের তদন্তের জন্য একটি বিশেষ তদন্তকারী দল (সিট) গঠন করেছে। সিট-এর নেতৃত্বে থাকবেন অতিরিক্ত মুখ্যসচিব সঞ্জয় ভুরেড্ডি এবং ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে তার রিপোর্ট জমা দিতে হবে। কানপুরে আটজন পুলিশ হত্যার মূল অভিযুক্ত বিকাশ দুবে গতকাল একটি এনকাউন্টারে নিহত হন।



অতিরিক্ত মুখ্যসচিব (স্বরাষ্ট্র ও তথ্য) অবনীশ কুমার আওয়াস্তি বলেন, এ ব্যাপারে অতিরিক্ত মুখ্যসচিব সঞ্জয় ভুরেদির সভাপতিত্বে সিট গঠন করা হয়েছে। আওয়াস্তি বলেন যে অতিরিক্ত ডিজিপি হরিরাম শর্মা এবং ডিআইজি জে রবীন্দ্র গৌরকে সিট-এর সদস্য হিসেবে মনোনীত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, সিট নিশ্চিত করবে যে ২০২০ সালের ৩১ শে জুলাই য়ের মধ্যে তদন্ত রিপোর্ট সরকারের কাছে দেওয়া হবে, এই মামলা এবং মামলা সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ তদন্ত যাতে হয় সে ব্যাপারে নিশ্চিত করা হবে।



অন্যদিকে ইডি গ্যাংস্টার বিকাশ দুবের সম্পত্তির তদন্ত করবে। এই তদন্তের সময় বিকাশ দুবে ও তার সহযোগীদের স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি সম্পর্কে জানতে পারবে ইডি। এছাড়াও একটি তদন্ত করা হবে যারা আর্থিকভাবে বিকাশ দুবে এবং তার গ্যাংকে শক্তিশালী করছিল তাদের ব্যাপারে।
বিকাশ দুবে এনকাউন্টারের পর বিকাশের গ্যাং-এর অন্যান্য দুষ্কৃতীদের ধরতে ইউপি পুলিশ ইতিমধ্যে তল্লাশি শুরু করেছে।



এই ঘটনায় মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিয়রে বিকাশ দুবে গ্যাং-এর লোকজনকে আশ্রয় দেওয়ার অভিযোগে ইউপি পুলিশ দুইজনকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ সূত্রের খবর, বিকাশ দুবে গ্যাং-এর দুই সদস্য শশীকান্ত পাণ্ডে এবং গোয়ালিয়রের শিবম দুবেকে আশ্রয় দেওয়ার অভিযোগে গত ৭ জুলাই ওমপ্রকাশ পাণ্ডে ও অনিল পাণ্ডেকে গ্রেফতার করে ইউপি এসটিএফ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here