দেশজুড়ে করোনার গ্রাফ উর্ধমুখী হওয়াতে বাড়ছে চাপ।একের পর এক হৃদয় বিদারক ঘটনার সাক্ষী থাকচিও আমরা।করোনা আবহের মাঝে আরো এক হৃদয় বিদারক ঘটনা যা চোখে জল আনলো দেশবাসীর।ঘটনাটি ঘটেছে হায়দ্রাবাদের গান্ধীনগর হাসপাতালে। ৯৩ বছরের মহিলা করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন,যা যথেষ্ট নজিরও তৈরি হয় ৷ কিন্তু সম্পূর্ণ সুস্থ হওয়ার পরেও তাঁর বাড়ির লোক তাঁকে ফিরিয়ে নিয়ে যেতে অস্বীকার করে ৷



বিভিন্ন রাজ্যে করোনা মোকাবিলায় নিয়ম অনুসারে করোনামুক্ত রোগীরা বাড়ি ফিরে যাওয়ার পর ১৪ দিনের জন্য হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷হায়দ্রাবাদের হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়,রোগীরা সুস্থ হয়ে যাওয়ার পর আর করোনা টেস্ট হয় না৷



সেই কারণে সতর্কতাবশত কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয় ৷বৃদ্ধার পরিবারে তাঁর ছেলে ও দুই নাতিও করোনা আক্রান্ত হয়েছিল ৷দুর্ভাগ্যবসত বৃদ্ধার ছেলের মৃত্যু হয়৷যদিও দুই নাতি সেরে ওঠে কোয়ারেন্টাইনে আছেন তারা ৷

সূত্রের খবর, বাড়ির লোক বৃদ্ধাকে দ্বিতীয়বার করোনা টেস্ট না করে বাড়ি নিয়ে যাবে না। অবশেষে হাসপাতাল আবার করোনা টেস্ট করানো হয় ৷