তেলেঙ্গানার এনকাউন্টারের তদন্ত কমিশন গঠন সুপ্রিম কোর্টের

ELEhq29U4AIDhmB-1-2.jpg

পিনাকী চক্রবর্তী: তেলেঙ্গানায় পশু চিকিৎসক ধর্ষণ এবং জ্বালিয়ে খুনের অভিযুক্তদের এনকাউন্টারের ঘটনায় অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতির নেতৃত্বে তদন্ত কমিশন গঠন করলো সুপ্রিম কোর্ট।

তেলেঙ্গানার পশু চিকিৎসক প্রিয়াঙ্কা রেড্ডির ধর্ষণের ঘটনায় অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি ভি এস সিরপুরকরের নেতৃত্বে তিন সদস্যের তদন্ত কমিশন গঠন করলো সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এসএ নাজির ও সঞ্জীব খান্নার বেঞ্চ। এই কমিশনে সিরপুরকর ছাড়া থাকবেন, বম্বে হাইকোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি রেখা ও সিবিআইয়ের প্রাক্তন অধিকর্তা কার্তিকেয়ন।



এই তদন্ত কমিশন গঠন করে শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, আগামী ৬ মাসের মধ্যে এই তদন্ত কমিশনকে সুপ্রিম কোর্টের কাছে তাদের রিপোর্ট জমা দিতে হবে।

এছাড়াও এদিন আদালত জানিয়েছে, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ বিষয়ে আর কোনো তদন্তকারী সংস্থা তদন্ত করতে পারবে না। এর ফলে এই বিষয়ে তেলেঙ্গানা সরকারের গঠিত বিশেষ তদন্তকারী দল এবং মানবাধিকার কমিশনকে তাদের তদন্ত বন্ধ রাখতে হবে।



প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, হায়দরাবাদে পশু চিকিৎসক প্রিয়াঙ্কা রেড্ডিকে গণধর্ষণের পর আগুন জ্বালিয়ে পুড়িয়ে মারার ঘটনার দশদিনের মাথায় সাইবেরাবাদ পুলিশের এনকাউন্টারে মৃত্যু হয় অভিযুক্ত চার জনের। পুলিশের দাবি, ঘটনার পুনর্নির্মাণের জন্য শুক্রবার ভোররাতে ঘটনাস্থলে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল এই ধর্ষণ এবং খুনের অভিযুক্ত চারজনকে। তখন পুলিশের বন্দুক ছিনিয়ে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে ওই অভিযুক্তরা। তখনই এনকাউন্টারে মৃত্যু হয় ওই চার অভিযুক্তের।

এবিষয়ে পুলিশ সাধারণ মানুষের একাংশের সমর্থন পেলেও সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এসএ নাজির ও সঞ্জীব খান্নার বেঞ্চ জানিয়েছে, ‘তেলেঙ্গানায় পশু চিকিত্‍‌সকের ধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত চার জনের এনকাউন্টারে মৃত্যুর নিরপেক্ষ তদন্ত হওয়া উচিত বলে আমরা মনে করি। তাই আমরা তদন্তের নির্দেশ দিচ্ছি।”

শীর্ষ আদালত এই এনকাউন্টারের তদন্তের নির্দেশ দেওয়ায় এই গোটা ঘটনার সম্পূর্ণ সত্য প্রকাশ পাবে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top