২০০৮ সালে পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকে বামেদের রক্তক্ষরণ চলছে।রাজ্যের সার্বিক পরিস্থিতির নিরিখে রাজ্যের বাম ও কংগ্রেস একসাথে লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।যদিও তার ফলাফল আশানুরূপ নয়।রাজ্যের শেষ তিন বিধানসভা উপনির্বাচনে বাম-কংগ্রেস জোট বেঁধে লড়ার পরও যে ভোট এসেছে তা দেখে বোঝা যাচ্ছে রাজ্যের মানুষ এই জোটকে ভালো ভাবে মেনে নেয়নি।কিন্তু সভা-সমাবেশে এখনও ভিড় করে একের পর এক তাক লাগাচ্ছে সিপিএম।সম্প্রতি লং মার্চেও বামেরা লাল ঝান্ডার ঝড় দেখিয়েছে।



লং মার্চের সাফল্যের পর নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরোধিতায় পথে নামছে আলিমুদ্দিন।এবার যে শুধু তারা রাস্তায় সীমাবদ্ধ থাকছে তা একেবারেই নয়।নাগরিকতত্ব সংশোধনী বিলের বিলের বিরোধীতায় এবারে ছোট ছোট সভা, লিফলেট বিলি, নাটক, গানের মাধ্যমে মানুষের মধ্যে সচেতনতা গড়ে তোলার পরিকল্পনা করেছে সিপিএম নেতৃত্ব।পাশাপাশি দলীয় ক্যাডারদের নিয়মিত ক্লাসের বন্দোবস্ত থাকছে আগের মতো,যেটা নিয়ে সাম্প্রতিক কালে বার বার অভিযোগ উঠেছে,সেই পুরোনো রীতি ফের নতুন মোড়কে ফিরতে চলেছে।



প্রসঙ্গত,বিলের প্রতিবাদে ১৯ ডিসেম্বর দেশজুড়ে প্রতিবাদে দেখা যাবে সিপিআইএম-সহ অন্যান্য বাম দলগুলিকে। ইতিমধ্যে আলিমুদ্দিনে প্রতিবাদের রূপরেখা তৈরি করতে ১৭ দলের বৈঠকও হয়ে গিয়েছে।সাধারণ মানুষের মধ্যে বিলি করা লিফলেটে তুলে ধরা হয়েছে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের পিছনে কেন্দ্রীয় সরকার তথা বিজেপির উদ্দেশ্য কি!
উল্লেখযোগ্য ভাবে,মোদি এবং অমিত শাহরা সামাজিক মেরুকরণ করে রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে চায় এই বিষয়টি সাধারণ মানুষকে বোঝাতে গিয়ে যাতে সমস্যা না হয়, সেজন্য রাজনৈতিক ক্লাসের আয়োজন রাখছে আলিমুদ্দিন।প্রতি সপ্তাহে ক্যাডারদের প্রশিক্ষণ করানোও হচ্ছে। সেই সাথে কাজে লাগানো হবে গণসংগঠনগুলিকে।গান, নাটক, লোকগীতির মধ্যে দিয়ে তুলে ধরা হবে এনআরসি ও সিএবি-র নেতিবাচক দিকগুলিও।



রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে কাজে নামছেন কমরেডরা।দলে থাকছেন কম বয়সীরা।এবার কম বয়সীরা দায়িত্ব নিয়ে তাঁরা মানুষের কাছে গিয়ে বোঝাবেন।তারাই বাড়ি বাড়ি গিয়ে বলবেন,দেশে একের পর কোম্পানি বন্ধ,চাকরি নেই,খাদ্যদ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি এসব থেকে চোখ সরাতেই NRC CAB আনা হচ্ছে।
তবে উল্লেখজনক ভাবে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস এখনো পর্যন্ত সেভাবে রাজ্যের নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে প্রতিবাদে নামেননি।গোটা ব্যাপার নিয়ে তাদের যথেষ্ট প্রশ্নের মুখেও পড়তে হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here