বাংলার এনআরসি বিরোধিতা নিয়ে সরব স্মৃতি ইরানি

eiGAGTL90169.jpg

রিয়াঙ্কা রায়: মোদি সরকারের ১০০ দিন পূর্ণ হওয়ার প্রসঙ্গে কলকাতায় বিজেপি নেতাদের বৈঠকে সম্প্রতি কলকাতায় এসেছিলেন কেন্দ্রীয় নারী শিশু করলেন এবং বস্ত্র মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি। ওই বৈঠকে কেন্দ্রীয় সরকারের জনকল্যাণমূলক কর্মসূচি ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে তিনি জানালেন মমতা ব্যানার্জির তৃণমূল সরকার কেন্দ্র বিরোধী কাজকর্ম করছে।



তিনি জানিয়েছেন, সারাদেশের মতো বাংলাতেও নগর পঞ্জি করার ব্যাপারে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ কেন্দ্র। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী এক্ষেত্রে তুমুল বিরোধিতা করলো তাতে কোন লাভ হবেনা বলেই তিনি দাবি করেছেন।

তিনি আরও দাবি করেছেন মমতা ব্যানার্জির সরকারের জন্যই এই রাজ্যের সাধারণ মানুষ কেন্দ্রীয় সরকার প্রদত্ত বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা ও প্রকল্প থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তিনি অভিযোগ জানিয়েছেন যে কেন্দ্রীয় সরকারের সাথে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগ এবং পরিষেবা সংক্রান্ত বৈঠকে রাজ্যের কোন প্রতিনিধিকে যোগদান করার অনুমতি দেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।



সে কারণেই রাজ্যের সাধারণ মানুষের কাছে কেন্দ্রীয় সরকার তাদের জনকল্যাণমূলক প্রকল্প পৌঁছে দিতে ব্যর্থ হচ্ছে। বাংলা এনআরসি চালু করে বেকারত্ব সমস্যা কিছুটা লাঘব হবে বলে দাবি করেছেন স্মৃতি ইরানি। তিনি আরো উল্লেখ করেছেন যে, এনআরসির উদ্দেশ্য কাউকে তাড়ানোর আগে সমস্ত ভারতীয়দের স্বার্থ রক্ষা করা। তাই রাজ্য সরকার বিরোধিতা করলেও কেন্দ্রের তরফ থেকে বাংলায় এনআরসি চালু করার সমস্ত ব্যবস্থাপনা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।



প্রসঙ্গত গত ৩১ শে আগস্ট আসামের চূড়ান্ত এনআরসি তালিকা প্রকাশিত হয়। এই তালিকা থেকে বাদ গেছে ১৯ লক্ষ ৬ হাজার ৬৫৭ জনের নাম। বিরোধীরা কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারের এ পদক্ষেপকে বীরের চূড়ান্ত অসন্তোষ প্রকাশ করেন। কেন্দ্রের এই পদক্ষেপের শুরু থেকেই বিরোধিতা করে এসেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তার রাজনৈতিক দল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top