না ইস্টবেঙ্গল নয়, মোহনবাগানও নয়। বহুদিন পর কোলকাতা ময়দান দেখলো ইস্ট-মোহন ব্যতীত কোনো ম্যাচে প্রায় পনেরো হাজার সমর্থকদের আগমন। হবে নাই বা কেন? দীর্ঘ ৩৮ বছর পর কোলকাতা ফুটবল লীগ জয়ের দোরগোড়ায় মহামেডান ক্লাব। ক্রোমাহীন পিয়ারলেস ক্লাবকে ২-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে লীগ জয়ের জন্য বাড়তি এ্যডভান্টেজ পেয়ে গেলো মহামেডান ক্লাব। মরশুমের মাঝপথে সুব্রত ভট্টাচার্য ওরফে বাবলুদাকে সরিয়ে টেকনিকাল ডিরেক্টর হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন নির্ভরযোগ্য প্রাক্তন প্লেয়ার দীপেন্দু বিশ্বাসের সঙ্গে এবং তারপরই ম্যাজিক। মোহনবাগানকে ৩-২গোলে পরাস্ত করা ও তারপরই পিয়ারলেস বধ। মহামেডান সমর্থকেরা পুরনো দিনের ঝলক দেখতে পাচ্ছে নতুন টিডি হিসেবে দীপেন্দুর অংশগ্রহণের পরে। সামনে এখন ইস্টবেঙ্গল। ২৬ তারিখ যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে দীপেন্দুর মহামেডান মুখোমুখি হবে আলেহান্দ্রোর ইস্টবেঙ্গলের। এই ম্যাচে তিন পয়েন্ট তুলে নিতে পারলে এবং একইসঙ্গে পিয়ারলেস পয়েন্ট খোয়ালেই চ্যাম্পিয়ন হতে পারবে মহামেডান স্পোর্টিং। পিয়ারলেসকে ২-০ গোলে পরাস্ত করে আপাতত ১০ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে লীগ টেবিলের একনম্বরে রয়েছে মহামেডান। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে পিয়ারলেস। ৯ ম্যাচে ১৭ পয়েন্ট পেয়ে লীগজয়ের অন্যতম সুবিধাজনক জায়গায় রয়েছে তারা। ৯ ম্যাচে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে কোয়েস ইস্টবেঙ্গল। এই পরিস্থিতিতে উপরোক্ত যেকোনো দলই চ্যাম্পিয়ন হতে পারে। কোলকাতা লীগ প্রিমিয়ার ডিভিশন জমে উঠেছে। হোকনা কাদা ভরা মাঠ, কাঠফাটা রোদ্দুর অথবা ভারী বর্ষন। কোলকাতার ফুটবল দর্শক কিন্তু এই মুহূর্ত উপভোগ করতে কোনো আপস করছেনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here