বাঙালিদের অপমান করলেন দিলীপ

imagecf41ff3e-1835-4139-9324-f4347b08bb49.jpg

পিনাকী চক্রবর্তী: বিতর্কিত মন্তব্য আর রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের নাম যেন‌ পরস্পর সমার্থক হয়ে গেছে ‌। বিতর্কিত মন্তব্যের জন্যই রাজনৈতিক মহলে সুপরিচিত হয়ে উঠেছেন তিনি। শনিবার পুরশুড়ায় বিজেপির এক সভা ফের বাঙালিদের উদ্দেশ্যে বিতর্কিত মন্তব্য করে শোরগোল ফেলে দিলেন দিলীপ ঘোষ।



সূত্রের খবর, শনিবার পুড়শুড়ায় বিজেপির একটি পদযাত্রার আয়োজন করেছিল। ওই পদযাত্রার শেষে দলীয় সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, “এখন সব জায়গায় কাটমানি। এই কাটমানি-তোলাবাজি শেষ করতে তৃণমূলকে হারাতে হবে। বাঙালি এখন চোর-চিটিংবাজ হয়ে গেছে। বাঙালির এই বদনাম ঘোচানোর জন্য বাংলায় পরিবর্তন আনতে হবে।”

এছাড়াও এদিনের সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করে বলেন, চন্দ্রযান ২ চাঁদে পৌঁছলে তাঁর সরকার ভেঙে যাবে এমনই ভেবেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই পাকিস্তানের সুরে সুর মিলিয়েছিলেন তিনি।



দিলীপ এ দিন বলেন, “এখন সব জায়গায় কাটমানি। এই কাটমানি-তোলাবাজি শেষ করতে তৃণমূলকে হারাতে হবে। বাঙালি মানে আজ চোর-চিটিংবাজ হয়ে গিয়েছে। এই বদনাম ঘোচানোর জন্য বাংলায় পরিবর্তন আনতে হবে”।

স্বভাবতই দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যের পরে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। রাজ্য বিজেপির সভাপতির এহেন মন্তব্যের প্রেক্ষিতে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে তৃনমূল নেতৃত্ব দাবি করেছেন দিলীপ ঘোষ অবাঙালি হিন্দি সাম্রাজ্যবাদীদের প্রতিনিধি। তাঁর এই মন্তব্য থেকেই পরিষ্কার বোঝা যায় বাঙালিদের কী চোখে দেখে বিজেপি।


দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যের পর স্বাভাবিক ভাবেই ক্ষুব্ধ বাঙালিদের একাংশ। বিতর্কিত মন্তব্য করে প্রচারের আলোয় থাকার জন্য তিনি কেন‌ আপামর বাঙালিকে অপমান করলেন, সে প্রশ্নও তুলেছেন অনেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top