রিয়াঙ্কা রায়: সাহসী ক্রীড়া প্রেমী বা যারা গালা বিয়ের অনুষ্ঠান পরিকল্পনা করছেন অথবা চারধাম তীর্থযাত্রী  প্রত্যেককেই এবার হিমালয় পাদদেশে উত্তরাখণ্ড যেতে হলে বাধ্যতামূলকভাবে একটি ‘সবুজ কর’ দিতে হবে। ট্যাক্সটি শহরের স্থানীয় সংস্থা দ্বারা নির্ধারিত হবে

এবং এইভাবে উৎপন্ন রাজস্বটি এ অঞ্চলের উন্নয়নের জন্য এবং ইকো বান্ধব অনুশীলনের জন্য ব্যবহার করা হবে। উত্তরাখণ্ড পরিবেশ সুরক্ষা ও দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ড (ইউইপিপিসিবি) বন ও পরিবেশ মন্ত্রী হরক সিং রাওয়াত সঙ্গে বৈঠকে হিমালয়ের রাজ্যে পর্যটকদের প্রবেশের কারণে দূষণ বাড়ানোর বিষয়টি উত্থাপিত করে।


তখন তিনি উত্তরাখণ্ডের পরিবেশ রক্ষার স্বার্থে সবুজ কর চালু করার প্রস্তাব দেন। তিনি পর্যটকদের কারণে গাছপালা যথেচ্ছ ভাবে নষ্ট করা বা প্লাস্টিকের দূর্ব্যাবহারের বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণভাবে তুলে ধরেন।ইতিমধ্যেই ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে জল সংরক্ষণের জন্য জল কর এছাড়াও জমি কর, রাজস্ব কর প্রভৃতি বিভিন্ন কর চালু রয়েছে।

স্বেচ্ছাচারে গাছ কাটার ফলাফলের ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে এই গ্রীষ্মে সমগ্র ভারতবাসীকে। তাই পরিবেশ রক্ষায় এই উদ্যোগ অত্যন্ত অভিনব। তবে তা কতটা কার্যকর হয়, সেটা সময়ের অপেক্ষা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here