বাস যাত্রীর হাত কেটে পড়ল রাস্তায়, কাটা হাত জুড়তে চেয়েও ব্যর্থ চিকিৎসকেরা












পিনাকী চক্রবর্তী: সাত সকালে এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনার সাক্ষী হল কলকাতা শহর। বাসের জানালা থেকে হাত কেটে রাস্তায় পড়ল এক ব্যক্তির।  এম আর বাঙুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দুর্ঘটনা পীড়িত ব্যক্তি। পুলিশ সূত্রে খবর, ওই ব্যক্তির নাম উৎপল কর্মকার (৪৫) । বৃহস্পতিবার সকাল ৯.৩০ নাগাদ 40 A  রুটের একটি বাসে হরিদেবপুর থেকে টালিগঞ্জ ট্রাম ডিপোর দিকে যাচ্ছিলেন তিনি ৷

বাসের বাঁদিকে জানালার পাশের একটি সিটে বসেছিলেন উৎপল কর্মকার নামের ওই ব্যক্তি৷ বাসটি টালিগঞ্জ করুণাময়ী কালীমন্দিরের কাছে পৌঁছতেই রাস্তার পাশে থাকা একটি নির্মীয়মান বাড়ির  পিলারের সঙ্গে ধাক্কা লাগে জানলার বাইরে বেরিয়ে থাকা  তাঁর বাঁ -হাতটির। উৎপল কর্মকারের ওই হাতটি রাস্তাৎ ছিটকে পড়ে ।

ঘটনাস্থলেই জ্ঞান হারান ওই ব্যক্তি। আহত  অবস্থায় তাঁকে  উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয় এম আর বাঙুর হাসপাতালে। এখন সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। হাসপাতাল সূত্র মারফত জানা গেছে ওই ব্যক্তির কাটা হাতটি জোড়া লাগানো যায় কি না তা নিয়ে এস এস কে এম সহ একাধিক হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন এম আর বাঙুর কর্তৃপক্ষ।

 তবে সব শেষে  উৎপল বাবুর কাটা হাতটি আর জোড়া লাগানো সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দিয়েছেন এম আর বাঙুর কর্তৃপক্ষ৷  অন্যদিকে স্থানীয় সূত্র থেকে জানা গেছে,গাইতি,  শাবল ইত্যাদি নিয়ে  ওই নির্মাণরত বাড়িতে চড়াও হয়ে ওই বাড়ির পিলারটি ভাঙা শুরু করে দিয়েছে স্থানীয় লোকজন।