লোকসভা নির্বাচনের পর বারবার উত্তপ্ত হয়েছে রাজ্যের পরিস্থিতি। তৃণমূল ও বিজেপি সংঘর্ষে প্রাণ যাচ্ছে সাধারণ কর্মীদের।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসার কোনো লক্ষণই নেই।আজও ভাটপাড়া নতুন করে উত্তপ্ত হয়েছে।থমথমে গোটা এলাকা।জারি হয়েছে ১৪৪ধারা।

ওপর দিকে গতকাল রাত্রে আমডাঙ্গার বিজেপি কর্মীর মৃত্যু ঘিরে রাজনৈতিক উত্তাপ ছড়ায়।বিজেপি কর্মী আকবর ওষুধ কিনতে গেলে সেখানে তার ওপর চড়াও হয় শাসক দল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।চেলা কাঠ দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয়।সূত্রের খবর এমনটাই।গুরুতর আহত আকবরকে প্রথমে বারাসাত জেলা হাসপাতালে এবং পরবর্তীতে অবস্থার অবনতি হলে আর.জি.কর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।এরপরেই আমডাঙ্গা উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ,পুলিশ এলে গাড়ি ভাঙচুর করা হয়।


বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং এলাকা পরিদর্শন এসে শাসক দলের দিকে অভিযোগের আঙ্গুল তুলে বলেন,পায়ের তলার মাটি সরে যাওয়াতে অশান্তি ছড়াচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।পুলিশের এফআইআর না নেওয়ার ব্যাপারে একহাত নিতে দেখা যায় বিজেপি সাংসদকে।

তিনি আরো বলেন,বাংলায় আর একটা নন্দীগ্রাম হবে।তেমনটা চাইছেন মমতা ব্যানার্জী।রাজ্যপালের সাথে কথা বলে রিপোর্ট জমা করবেন বলেও জানান তিনি। ভোট পরবর্তী হিংসা বেড়ে চলেছে।সাধারণ মানুষ দাবি তুলছেন আর কত হিংসার সাক্ষী থাকবে বাংলা?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here