Logo
News Categories
HomeNationalমাথার বালিশ হিসাবে বাদ যাওয়া পা ,চাঞ্চল্য হাসপাতালে

মাথার বালিশ হিসাবে বাদ যাওয়া পা ,চাঞ্চল্য হাসপাতালে

মাথার বালিশ হিসাবে বাদ যাওয়া পা ,চাঞ্চল্য হাসপাতালে

হাসপাতাল হোক বা  নার্সিং হোম অভিযোগ ,পাল্টা অভিযোগে জেরবার হয়েছে অতীতে।কিন্তু এবার যে ঘটনা ঘটলো তা বোধ হয় সব কিছুকেই চাপিয়ে গেল বলা চলে।তবে এ রাজ্যে নয়,ঘটনা উত্তরপ্রদেশের ঝাঁসির সরকারী হাসপাতালে। পথ দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তির বাদ যাওয়া পা -ই বালিশ হিসেবে ব্যবহার হলো হাসপাতালে।এমনই অমানবিক নৃশংস ঘটনার সাক্ষী থাকলো গোটা দেশ।
স্কুলবাস চালক ২৮ বছর বয়সী ওই যুবক শনিবার দুপুরে  মর্মান্তিক দুর্ঘটনার কবলে পড়েন। বাঁ-পায়ে গুরুতর আঘাত পান যুবকটি।তার বাড়ির লোক মহারানী লক্ষীবাঈ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করলে সেখানেই তার পা বাদ দিতে হয়। এরপরেই ওঠে  অভিযোগ, চিকিৎসার পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বালিশ হিসেবে তার কাটা পা ব্যবহার করে।
খবর ছড়াতে খুব বেশি সময় লাগেনি।উত্তেজনা ছড়ায় হাসপাতাল চত্বরে। হাসপাতালের প্রিন্সিপাল সাধনা কৌশিক বলেছেন, ” এমন দায়িত্বজ্ঞানহীনের  মতো কাজ যে  করেছে তাকে খুঁজে বের করতে হাসপাতালের তরফ থেকে চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি তৈরী করা হয়েছে,  কর্তৃপক্ষের গাফিলতি ধরা পড়লে অবশ্যই তাকেও শাস্তি দেওয়া হবে।” তবে শোনা যাচ্ছে  ঘটনার সাথে জড়িত একজন সিনিয়র অর্থোপেডিক ডাক্তার, একজন নার্স এবং অন্য আরেকজন ব্যক্তিকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।
এর আগেও গোরক্ষপুরে অক্সিজেনের অভাবে বহু শিশু মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে,আবার এই ঘটনা। স্বভাবতই উত্তরপ্রদেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা যে আরো একবার প্রশ্নচিহ্নের মুখে পড়লো সে ব্যাপারে কোনো সন্দেহই নেই।  হাসপাতালের এই ঘটনায় স্তম্ভিত সকলেই। স্বাভাবিকভাবে এই ঘটনার জন্য বিভিন্ন মহলে নিন্দার ঝড় উঠেছে।ঠিক কি কারণে এই ঘটনা সে ব্যাপারে এখনো কিছু জানা যায়নি।
(ছবি সংগৃহীত)
No Comments

Leave A Comment

error: Content is protected !!